বিজ্ঞপ্তি:
জাগো বাঙ্গালী টোয়েন্টিফোর ডট কমে আপনাকে স্বাগতম
সংবাদ শিরোনাম :
প্রথম বার এক্সপ্রেস ট্রেনে শুকনো মরিচ এলো বেনাপোলে, নতুন উদ্যোগ ভারতীয় রেলের  যশোরের ঝিকরগাছায় বৃদ্ধা মহিলার মৃত্যুকে পুঁজি করে সাংবাদিক পরিচয়ে চাঁদাবাজির অভিযোগ দেশ সেরা উদ্ভাবক মিজানুরের এতিমদের মাঝে কুরআন শরীফ, খাবার , মাস্ক ও গাছের চারা বিতরণ শার্শার বারপোতা বিদ্যালয়ের সাবেক প্রধান শিক্ষকের পেনসনের অর্থ না পাওয়ায় মৃত্যু বেনাপোল ফেনসিডিল সহ যুবক আটক শার্শা উপজেলার কিন্ডারগার্টেন স্কুলের জন্য সরকারি অনুদান দাবিতে অবস্থান ধর্মঘট বেনাপোল প্রেসক্লাবের সদস্য ও মানবকন্ঠের সাংবাদিক ফারুক করোনা মুক্ত বেনাপোলে কাস্টমে লক্ষ্যমাত্রার অর্ধেক পূরণ, রাজস্ব আয়ে ধস সাড়ে ৩ মাস পর আন্দোলনের মুখে বেনাপোল দিয়ে ভারতে রফতানি শুরু বেনাপোল থানার অভিযানে ভারতীয় ফেন্সিডিলসহ এক যুবক গ্রেফতার
নাগরপুরে ৩ পুলিশ সদস্য সহ ৫ জন আক্রান্ত

নাগরপুরে ৩ পুলিশ সদস্য সহ ৫ জন আক্রান্ত

নাগরপুর (টাঙ্গাইল) প্রতিনিধিঃ সারা দেশে চলমান করোনার ভয়ানক পরিস্থিতিতে লাফিয়ে বাড়ছে আক্রান্তের সংখ্যা। নাগরপুর থানার পুলিশ সদস্যদের মধ্যেও একই চিত্র দৃশ্যমান হচ্ছে। থানার ৩ পুলিশ সদস্য ও পুলিশ পরিবারের ২ জন সহ মোট ৫ জন আক্রান্ত হয়েছে আজ।

গত ২৫ মে নাগরপুর থানার ১ জন পুরুষ পুলিশ সদস্য (কনষ্টেবল ড্রাইভার) করোনায় আক্রান্ত হন। পরদিনের পাঠানো নমুনার রিপোর্ট আসে আজ ৩১ মে, এতে আগের আক্রান্ত করোনা যোদ্ধার স্ত্রী ও ছেলে সহ একই থানার আরো ৩ জন পুরুষ পুলিশ সদস্যের শরীরে সনাক্ত হয় করোনা ভাইরাস।

নতুন আক্রান্ত করোনা যোদ্ধাদের মধ্যে নাগরপুর থানা পুলিশের ৪২ ও ৩৫ বছর বয়সী ২ জন পুরুষ এসআই এবং ৩৭ বছর বয়সী ১ জন পুরুষ কনস্টেবল। এতে করে নাগরপুর থানা পুলিশের ৪ জন পুরুষ সদস্য করোনা আক্রান্ত হলেন।
বিষয়টি আইইডিসিআর এর রিপোর্টের ভিত্তিতে নিশ্চিত করেন উপজেলা প.প কর্মকর্তা মো. রোকুনুজ্জামান খান।

উপজেলায় মোট করোনা আক্রান্তের সংখ্যা ২১ জন, এদের মধ্যে সুস্থ হয়েছেন ৫ জন এবং চিকিৎসাধীন আছেন ১৬ জন। এদের মধ্যে পুলিশ সদস্য ৪ জন এবং ২ জন পুলিশ পরিবার।

সংবাদটি লেখার সময় পর্যন্ত জানা যায়, আক্রান্ত সকলকে আলাদা রাখা হয়েছে। আক্রান্তদের সংস্পর্শে কে কে এসেছিল তাদের সবার নমুনা সংগ্রহ করা হচ্ছে বলে জানিয়েছেন উপজেলা প.প কর্মকর্তা মো. রোকুনুজ্জামান খান।

নাগরপুর থানার বর্তমান পরিস্থিতিতে প্রাথমিক পদক্ষেপ গ্রহণ করা হয়েছে। থানায় জনসাধারণের চলাচল সীমিত করা হয়েছে। আক্রান্ত অফিসারদের বিল্ডিং লক ডাউন করা হয়েছে।
করনীয় পরবর্তী পদক্ষেপ গ্রহণের বিষয়ে উর্ধতন কর্মকর্তাদের সাথে আলোচনা করে সিদ্ধান্ত নেয়া হবে জানিয়েছেন নাগরপুর থানার অফিসার ইনচার্জ ওসি মো. আলম চাঁদ।

উপজেলা নির্বাহি অফিসার ইউএনও সৈয়দ ফয়েজুল ইসলাম আক্রান্তদের দ্রুত সুস্থতা কামনা করে বলেন, আক্রান্ত অফিসারদের বিল্ডিং লক ডাউন করা হয়েছে। থানায় জনসাধারণের প্রবেশ সীমিত করা হয়েছে। থানায় সবাই নিরাপদ দূরত্ব বজায় রেখে মাস্ক পড়ে কাজ করবে। নাগরপুর থানার সকল পুলিশ সদস্যদের দ্রুত করোনা পরীক্ষা করা হবে। বর্তমান পরিস্থিতিতে, নাগরপুর থানার অফিসার ইনচার্জ ওসি মো. আলম চাঁদ এবং আমি এই সিদ্ধান্তে একমত হয়েছি।

বিঃদ্রঃ-
অফিসের রেকোর্ড রাখার জন্য আক্রান্ত রোগীদের নামঃ
এসআই মো. সৈয়দ আলী (৪২), আলমগীর হোসেন (৩৫), কনস্টেবল আব্দুল জব্বার (৩৭), নূরজাহান (৩২), সাঈদ হাসান (৮)

লিডনিউজ

Comments are closed.




সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত-২০১৮-এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা বা ছবি অনুমতি ছাড়া নকল করা বা অন্য কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ণ বেআইনি
Developed BY: AMS IT BD