বিজ্ঞপ্তি:
জাগো বাঙ্গালী টোয়েন্টিফোর ডট কমে আপনাকে স্বাগতম
সংবাদ শিরোনাম :
প্রথম বার এক্সপ্রেস ট্রেনে শুকনো মরিচ এলো বেনাপোলে, নতুন উদ্যোগ ভারতীয় রেলের  যশোরের ঝিকরগাছায় বৃদ্ধা মহিলার মৃত্যুকে পুঁজি করে সাংবাদিক পরিচয়ে চাঁদাবাজির অভিযোগ দেশ সেরা উদ্ভাবক মিজানুরের এতিমদের মাঝে কুরআন শরীফ, খাবার , মাস্ক ও গাছের চারা বিতরণ শার্শার বারপোতা বিদ্যালয়ের সাবেক প্রধান শিক্ষকের পেনসনের অর্থ না পাওয়ায় মৃত্যু বেনাপোল ফেনসিডিল সহ যুবক আটক শার্শা উপজেলার কিন্ডারগার্টেন স্কুলের জন্য সরকারি অনুদান দাবিতে অবস্থান ধর্মঘট বেনাপোল প্রেসক্লাবের সদস্য ও মানবকন্ঠের সাংবাদিক ফারুক করোনা মুক্ত বেনাপোলে কাস্টমে লক্ষ্যমাত্রার অর্ধেক পূরণ, রাজস্ব আয়ে ধস সাড়ে ৩ মাস পর আন্দোলনের মুখে বেনাপোল দিয়ে ভারতে রফতানি শুরু বেনাপোল থানার অভিযানে ভারতীয় ফেন্সিডিলসহ এক যুবক গ্রেফতার
করোনায় আক্রান্ত রোগীকে দেখতে গেলেন বেনাপোল পৌর মেয়র লিটন

করোনায় আক্রান্ত রোগীকে দেখতে গেলেন বেনাপোল পৌর মেয়র লিটন

মোঃ আইয়ুব হোসেন পক্ষী, বেনাপোল প্রতিনিধিঃ পৃথিবীতে কোন ভাইরাসই মানুষের সঙ্গে লড়াই করে জিততে পারেনি। সবেচেয়ে সংক্রামক বলে পরিচিত হাম রোগের ভাইরাস রুবিওলা ও মানুষের কাছে পরাজিত হযেছে। মানুষ জিতেছে, কিন্তু মানবিকতা? মনে হয় নয়। করোনা রোগকে ”ভয় নয়’ করোনাকে জয় করতে হবে। মহামারি এ সংক্রামক ইতিমধ্যে যাদের আক্রান্ত করেছে তাদের ধৈর্য্য হারা হলে হবে না। তাদের সাহসের সাথে মোকাবেলা করতে হবে। আমরা তাদের পাশে আছি। কথাগুলো বললেন বেনাপোলে করোনা আক্রান্ত এক স্বাস্থ্য কর্মীর বাসায় গিয়ে মৌসুমি ফল, সবধরনের করোনা সংক্রান্ত উপকরন ও উৎসাহ যোগানোর চিঠি দেওয়ার সময় যশোর জেলা আওয়ামীলীগের যুগ্ম সাধারন সম্পাদক বেনাপোল পৌর মেয়র আশরাফুল আলম লিটন।

শুক্রবার ১২ টার কিছুক্ষন পর  বেনাপোল এর দুর্গাপুর রোডের স্বাস্থ্য কর্মী শাহনাজ পারভীন করোনা আক্রান্ত হয়েছে এমন সংবাদের ভিত্তিতে ছুটে যান তার বাসায় বেনাপোল পৌর মেয়র আশরাফুল আলম লিটন। তিনি বলেন করোনা ভাইরাস কোভিড-১৯ আক্রান্তদের অবহেলার চোখে নয়। তাদের সহমর্মিতার পরশ ও সার্বিক সহযোগিতা প্রয়োজন। আক্রান্ত পরিবারের আশেপাশের পরিবারগুলোকে ও সচেতন থাকতে হবে। তারা যেন স্বাস্থ্যবিধি মানেন এবং আক্রান্ত ব্যক্তি ও তাদের পরিবারের প্রতি সংবেদনশীল থাকেন। তিনি করোনা আক্রান্ত এই পরিবারের হাতে গ্লাবস, পিপিই, হ্যান্ড স্যানিটাইজার , মাস্ক,মৌসুমি ফল ও প্ররেয়াজনীয় ঔষধ সহ বিভিন্ন উপকরন তুলে দেন। এসময় তিনি সাহস যোগানোর জন্য বেনাপোল পৌরসভার পক্ষ থেকে ওই পরিবারের কর্তার হাতে একটি চিঠি ও দেন। করোনা রোগির পাশে বেনাপোল পৌরসভা সবসময় পাশে আছে বলে চিঠিতে উল্লেখ আছে। এছাড়া বেনাপোল পৌরসভায় কেউ করোনা আক্রান্ত হলেও এই পৌরসভার সেবক হিসাবে মেয়র পাশে আছে বলে তিনি ওই পরিবারকে সাহস দেন।

এসময় তিনি সকলকে তাদের পাশে থাকার জন্য অনুরোধ করেন। তিনি বলেন এই স্বাস্থ্য কর্মী অচিরেই সুস্থ্য হয়ে আমাদের মাঝে ফিরে আবারও সুস্থ্য ভাবে জীবন যাপন করবেন।

এসময় উপস্থিত ছিলেন আওয়ামীলীগ, আওয়ামী সাংস্কৃতিক ফোরাম, যুবলীগ ও ছাত্রলীগের নেতা কর্মীরা।

উল্লেখ্য স্বাস্থ্য কর্মী শাহনাজ পারভীন দীর্ঘ ৬ মাস বেনাপোল চেকপোষ্ট ইমিগ্রেশনে কর্তব্যরত ছিলেন। তবে দুর্গাপুর রোডের এই বাড়িটি উপজেলা প্রশাসন ইতিমধ্যে লক ডাউন করেছেন।

 

লিডনিউজ

Comments are closed.




সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত-২০১৮-এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা বা ছবি অনুমতি ছাড়া নকল করা বা অন্য কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ণ বেআইনি
Developed BY: AMS IT BD