বিজ্ঞপ্তি:
জাগো বাঙ্গালী টোয়েন্টিফোর ডট কমে আপনাকে স্বাগতম
সংবাদ শিরোনাম :
বঙ্গমাতা এমন একজন নারী যে সবসময়ই বঙ্গবন্ধুকে উৎসাহিত করেছে ____ শেখ আফিল উদ্দিন এমপি বেনাপোল পোর্ট থানার অভিযানে নামাজ গ্রাম থেকে ১৮৯ বোতল ফেন্সিডিল সহ আটক-২ শার্শার কামার বাড়ী থেকে ৭২ লিটার চোলাই মদ সহ আটক-১ বেনাপোল সীমান্তে ভারতীয় ফেন্সিডিল উদ্ধার আটক-২ যুবকরা হচ্ছে রাষ্ট্রের উন্নয়নের কারিগর,যুবকরা হচ্ছে বঙ্গবন্ধুর আদর্শের যুবক____মেয়র লিটন নন-এমপিও কারিগরি, মাদ্রাসা ও স্বতন্ত্র ইবতেদায়ী মাদ্রাসার শিক্ষক কর্মচারীগনের প্রধানমন্ত্রীর চেক প্রদান সংগঠন বিরোধী বক্তব্য দেয়ায় বেনাপোল পৌর মেয়র লিটনের বহিষ্কার দাবি আওয়ামী লীগের বর্ধিত সভায় বেনাপোল সীমান্তে বিএসএফের গুলিতে বাংলাদেশী যুবক আহত যশোর বেনাপোল সড়ক প্রশস্তসহ ৫ দফা দাবিতে বেনাপোলে বন্দর ব্যবহারকারি বিভিন্ন সংগঠনের সংবাদ সম্মেলন,প্রধানমন্ত্রীর হস্তক্ষেপ কামনা। বেনাপোল কাস্টম হাউসের উদ্যোগে সিএন্ডএফ স্টাফদের মাঝে বিনামূল্যে মাস্ক বিতরন
সাড়ে ৩ মাস পর আন্দোলনের মুখে বেনাপোল দিয়ে ভারতে রফতানি শুরু

সাড়ে ৩ মাস পর আন্দোলনের মুখে বেনাপোল দিয়ে ভারতে রফতানি শুরু

মোঃ আইয়ুব হোসেন পক্ষী,বেনাপোল প্রতিনিধি :অবশেষে আন্দোলনের মুখে ১০৫ দিন পর বেনাপোল-পেট্রাপোল স্থলবন্দর দিয়ে ভারতে বাংলাদেশী পণ্য রফতানি শুরু হলো। সেই সাথে ৫ দিন বন্ধ থাকার পর স্বাভাবিক হলো আমদানি কাযর্ক্রম। প্রথম দিনে রবিবার বিকেল সাড়ে ৫টায় গার্মেন্টস সামগ্রীর পণ্য নিয়ে ৫টি বাংলাদেশি ট্রাক ভারতের পেট্রাপোল বন্দরে প্রবেশ করে। এরপরপরই আমদানি বাণিজ্য শুরু হয়। আজ ভারত থেকে শুধু কাঁচামালের কয়েকটি ট্রাক বেনাপোল বন্দরে প্রবেশ করবে। আমদানি-রফতানি চালু হওয়ায় বেনাপোলসহ পেট্রাপোল বন্দরে কর্মচা ল্য ফিরে এসেছে।

বন্দর সূত্রে জানা গেছে, গত ২২ মার্চ থেকে করোনা ভাইরাস সংক্রমণের কারণে বেনাপোল-পেট্রাপোল বন্দর দিয়ে আমদানি-রফতানি বন্ধ হয়ে যায় দু‘দেশের মধ্যে। পরে দফায় দফায় বৈঠকের পর পশ্চিমবঙ্গ রাজ্য সরকারের নির্দেশে গত ৭জুন থেকে সীমান্ত বাণিজ্য সচল হয়। এরপর থেকে ভারতীয় পণ্য বাংলাদেশে আসছে। কিন্ত বাংলাদেশি কোন পণ্যচালান ভারতে রফতানি হয়নি। বেনাপোলের বন্দর ব্যবহারকারিরা বলছেন, করোনা সংক্রমনের শঙ্কায় ‘নিরাপত্তাজনিত কারণ দেখিয়ে ভারতীয়রা বাংলাদেশ থেকে কোন রফতানি পণ্য গ্রহন করেনি। ফলে আমদানি কার্যক্রম স্বাভাবিক থাকলেও ব্যাহত হচ্ছিল রফতানি। বাড়ছিল বাণিজ্য ঘাটতি। ক্ষতিগ্রস্ত হচ্ছিল এদেশের রফতানিকারকরা। বৈদেশিক আয় থেকে বি ত হচ্ছিল দেশ।

বাধ্য হয়ে রফতানি পণ্য না নেওয়ায় গত বুধবার (১ জুলাই) সকাল থেকে বেনাপোল-পেট্রাপোল বন্দর দিয়ে রফতানিকারকরা এক হয়ে বন্ধ করে দেয় আমদানি বাণিজ্য কার্যক্রম। এ নিয়ে তোলপাড় শুরু হয় খোদ পশ্চিবঙ্গ রাজ্য সরকারের দপ্তরে। ভারতীয় ব্যবসায়ীরা চায় আমদানি হলে রফতানি হবে না কেন। পরে শনিবার রাজ্য সরকারের নবান্নে এক জরুরী বৈঠকে রফতানির বিষয়টি নিয়ে ব্যাপক আলোচনার পর স্বাস্থ্য বিধি মেনে যে প্রক্রিয়ায় আমদানি হচ্ছে একই প্রক্রিয়ায় রফতানি চালু করার নির্দেশ দিলে পেট্রাপোল বন্দর ও কাস্টমস কর্তৃপক্ষ রবিবার বিকেল থেকে রফতানি পণ্য নিতে আগ্রহ দেখায়। এরই প্রেক্ষিতে এদিন ৫টি গার্মেন্টস এর পণ্যবাহী বাংলাদেশী ট্রাক পেট্রাপোল বন্দরে প্রবেশের অনুমতি দেন। সময় স্বল্পতার কারণে এদিন বেশি ট্রাক পাঠানো যায়নি। তবে সোমবার সকাল থেকে দু‘দেশের মধ্যে আবারো আমদানি-রফতানি স্বাভাবিক ভাবে চলবে বলে বন্দর সংশ্লিষ্টরা জানিয়েছে।

বেনাপোল সিঅ্যান্ডএফ এজেন্ট স্টাফ এ্যাসোসিয়েশনের সাধারন সম্পাদক সাজেদুর রহমান বলেন, ভারতীয় বন্দর ব্যবহারকারী বিভিন্ন সংগঠনের সাথে একাধিকবার আলোচনা করেও রফতানি চালু করা যায়নি। রফতানিকারকরা আমদানি কার্যক্রম বন্ধ করে দেওয়ায় অবশেষে টনক নড়ে ভারতীয় প্রশাসনসহ বন্দর ব্যবহারকারীদের। ভারতীয় সরকারের সিদ্ধান্তের পর আজ রোববার বিকেল সাড়ে ৫টার দিকে বেনাপোল বন্দর থেকে ৫ ট্রাক রফতানি পণ্য গ্রহণ করে ভারতীয় বন্দর কর্তৃপক্ষ। সেই সাথে ওপারে যেসক পঁচনশীল পণ্য আটকে আছে সেগুলো গ্রহণ করা হবে।

বেনাপোল বন্দরের উপ-পরিচালক (ট্রাফিক) মামুন কবির তরফদার জানান, দীর্ঘদিন পর আজ রবিবার বেনাপোল বন্দর দিয়ে ৫ ট্রাক পণ্য ভারতে রফতানি হয়েছে। আগামীকাল থেকে এ পথে আমদানি-রফতানি কার্যক্রম স্বাভাবিক ভাবে চলবে।

লিডনিউজ

Comments are closed.




সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত-২০১৮-এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা বা ছবি অনুমতি ছাড়া নকল করা বা অন্য কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ণ বেআইনি
Developed BY: AMS IT BD